ছাত্র ছাত্রীদের জন্য ফ্রিল্যান্সিং

ছাত্র ছাত্রীদের জন্য ফ্রিল্যান্সিং পেশাটি কেমন?

লেখাপড়ার পাশাপাশি ছাত্র ছাত্রীদের জন্য ফ্রিল্যান্সিং পেশাটি শুরু করা যায় কি না এ নিয়ে আমাদের কাছে নিয়মিত অনেক প্রশ্ন আসে। আমাদের নিজের অভিজ্ঞতা থেকে বলতে পারি যে, ছাত্রাবস্থাতে লেখাপড়ার পাশাপাশি ফ্রিল্যান্সিং শুরু করাটাই সবচেয়ে বুদ্ধিমানের কাজ। 

ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য ফ্রিল্যান্সিং পেশাটি একটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ খাত। ফ্রিল্যান্সিং করে বর্তমান বিশ্বে এখন বহু মানুষ স্বাবলম্বী হচ্ছে। তাই অত্যন্ত আকর্ষণীয় এই পেশাটি গ্রহণ করতে পারে ছাত্র-ছাত্রীরা।

এ সময়ে ফ্রিল্যান্সিং শুরু করলে তা পার্ট টাইম কাজ হিসেবেই নিতে হবে ছাত্র-ছাত্রীদের কে এটাই আমার পরামর্শ।

ছাত্র ছাত্রীদের জন্য ফ্রিল্যান্সিং করার সুবিধা সমূহঃ

ছাত্র-ছাত্রী থাকাকালীন সময়ে ফ্রিল্যান্সিং শুরু করার অনেক সুবিধাগুলোর মধ্যে কয়েকটি বিশেষ সুবিধা আমি এখানে তুলে ধরেছি।

১। আয়ের পথ সৃষ্টি হয় যা নিজের লেখাপড়া এবং ব্যক্তিগত খরচ মেটায়।

২। নিজের ক্যারিয়ার বেছে নেওয়ার সুযোগ সৃষ্টি হয়।

৩। আইটি ফিল্ডে স্কিল্ড হওয়া যায়।

৪। বিদেশি বায়ারদের সাথে কাজ করার ফলে ইংরেজিতে যথেষ্ট দক্ষ হওয়া যায়।

৫। কাজে ব্যাস্ত থাকায় খারাপ সঙ্গ বা বদ অভ্যাস থেকে দূরে থাকা যায়।

৬। ভবিষ্যত চাকুরীর জন্য নিজেকে প্রস্তুত করা সহজ হয়।

৭। দায়িত্বশীল ও কর্মঠ হওয়া যায়।

৮। পরিবারকে আর্থিক ভাবে সাহায্য করা যায় তাতে নিজের মর্যাদা বাড়ে।

যেসব বিষয় নিয়ে ফ্রিল্যান্সিং শিখতে পারেনঃ

  • ওয়েব ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট
  • ডিজিটাল মার্কেটিং
  • সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন
  • কন্টেন্ট রাইটিং এবং ব্লগিং
  • গ্রাফিক ডিজাইন

তাই আর দেরি না করে আপনার ভালো লাগা যে কোনো কাজ ভালোভাবে শিখে নেমে পড়ুন ফ্রিল্যান্সিং এ।

নিয়মিত ব্লগ পোস্ট পড়তে আমাদের ব্লগটি ভিজিট করুন। পাশাপাশি সোশ্যাল মিডিয়াতে আমাদেরকে ফেসবুকে ফলো করতে পারেন আমাদের স্টাডিটেক ফেসবুক পেজ

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *